সৌদি আরবে সড়ক দু*র্ঘ*টনায় নি*হত ১১ বাংলাদেশী

রাজধানী রিয়াদ থেকে ওমরাহ বাসে মদিনা হয়ে মক্কা যাবার পথে এক ভ’য়াবহ সড়ক দু’*র্ঘ*টনায় ঘটনাস্থলেই ১১ বাংলাদেশী নি’*হত হয়েছেন। ইন্না লিল্লাহে ও ইন্না ইলাইহে রাজিউন!
বুধবার সন্ধ্যা ৭.৩০ এর দিকে যাত্রাপথে আকস্মিক একটি মাটি কাটার শাওয়ালের সঙ্গে যাত্রীবাহী বাসটির মুখোমুখি সং*ঘ’র্ষ হয়। সঙ্গে সঙ্গে বাসটিতে আ’গুন ধরে যায়। ঘটনাস্থলেই বাসের ৩৬ যাত্রী অ’গ্নিদ’গ্ধ হয়ে নি’হত হন। বাসের বাকি ৪ যাত্রী গু’রুতর আ’হত হন।

বাসটির ৪০ ওমরাহ হজ যাত্রীর মধ্যে ১৩ জন বাংলাদেশী হজ যাত্রী ছিলেন। তাদের মধ্যে ১০ জনের নাম সংগ্রহ করা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছে জেদ্দা কনস্যুলেট।১৩ জনের মধ্যে ২ জন মদিনায় নেমে গিয়েছিলেন, বাকি ১১ জন ই ছিলেন বাসের মধ্যে। যেহুতু আহতদের মাঝে কোন বাংলাদেশী নেই,তাই ধারণা করা হচ্ছে ১১ জন ই নি’হত হয়েছেন। নি’হতদের মৃ’*তদেহ নিজ দেশে বহন উপযোগী নয় বলে জানিয়েছে কর্তৃপ

সৌদিতে বাস দু*র্ঘটনা: নি**হতের মধ্যে ৯ জন বাংলাদেশির পরিচয় প্রকাশ
দু*র্ঘট*নার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে যায় রেড ক্রিসেন্টসহ অন্যান্য জরুরি সেবা সংস্থা।
রিয়াদের বাথা এলাকার দার আল মিকাত ওমরাহ এজেন্সির ওই বাস মোট ৫০ জন যাত্রী নিয়ে
মদিনা গিয়েছিল। একদিন পর ৩৯ জন আরোহী নিয়ে মদিনা থেকে মক্কার উদ্দেশে রওনা হয়ে বাসটি দু**র্ঘটনায় পড়ে।

আল-আখাল গ্রামের কাছে সড়কের সংস্কার কাজে থাকা একটি লোডারের সঙ্গে সং**ঘর্ষ হলে বাসটিতে আগুন ধরে যায়।
দুর্ঘ**টনাকবলিত গাড়িতে ৯ বাংলাদেশির মধ্যে ৬ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। পরিচয় পাওয়া বাংলাদেশিরা হলেন- মোকতার হোসেন, হুমায়ুন কবির, নাসির, রুহুল আমিন, মানু মিয়া, সাকিব। নি**হত**দের লা**শ মদিনার কিং ফাহাদ হাসপাতালের ম*র্গে রয়েছে।

এর আগে,
সৌদি আরবে একটি গাড়ির সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে ওমরাহযাত্রী বহনকারী একটি বাসে আগুন ধরে গেছে। এতে ওই বাসের ৩৫ জন নি*হত হয়েছেন।
সৌদি আরবে ওমরাহ যাত্রী বহনকারী একটি বাসে আগুন ধরে ৩৫ জনের মৃ**ত্যু হয়েছে।
এরা সবাই বিদেশি হলেও কোনো বাংলাদেশি আছেন কি-না, তা তাৎক্ষণিক জানা যায়নি।

বুধবার (১৬ অক্টোবর) স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টার দিকে (বাংলাদেশ সময় রাত ১০টা) মদিনার ১৭০ কিলোমিটার দূরে আল-আখাল গ্রামের হিজরা রোডে এ দুর্ঘ**টনা ঘটে।

স্থানীয় পু**লিশের বরাত দিয়ে রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সৌদি প্রেস এজেন্সি জানায়, এশিয়ান ও আরব দেশের নাগরিকদের বহনকারী বাসটিতে ৩৯ জন ছিলেন।
বেসরকারি পরিবহনের বাসটি একটি লোডারের (সাধারণত নির্মাণকাজে ব্যবহৃত ভারী গাড়ি) সঙ্গে ধাক্কা খায়, এতে বাসটিতে আ*৮গুন ধরে যায় এবং এই প্রাণহানি ঘটে।

যে ক’জন আহত বা দগ্ধ হয়েছেন তাদের উদ্ধার করে নিকটস্থ আল-হামনা হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।প্রথমে সংবাদমাধ্যম ৩৬ জনের মৃ***ত্যুর খবর দিলেও পরে সৌদির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ৩৫ জনের তথ্য জানায়।
দু*8র্ঘ*টনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে যায় রেড ক্রিসেন্টসহ অন্যান্য জরুরি সেবা সংস্থা।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *